আসুন যেনে নিই দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা – Methods and Benefits of Seating – Free Tips

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা - Methods and Benefits of Seating
দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা -Methods and Benefits of Seating

দৃষ্টিদান করার পদ্ধতি ও উপকারিতা: যোগ (Yoga) হল প্রাচীন ভারতে উদ্ভূত এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা। শরীর, মন সুস্থ ও সবল রাখতে এবং রোগ মুক্তিতে যোগাসনের ভূমিকা আজ সুপ্রতিষ্ঠিত। এই প্রথা সারা বিশ্বে আজও প্রচলিত আছে। তাই আজ আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি দৃষ্টিদান করার পদ্ধতি ও উপকারিতা। দৃষ্টিদান করার পদ্ধতি ও উপকারিতা নিয়ে নিচে আলোচনা করা হল।

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি:

দৃষ্টিদান আসন: প্রথমে পদ্মাসন বা সুখাসনে বসুন । অর্থাৎ যেভাবে আরাম অনুভব করেন সেভাবেই বসুন । তবে যে আসনই হোক না কেন- মেরুদণ্ড সোজা টানটান রেখে বসবেন ।

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা - Methods and Benefits of Seating
দৃষ্টিদান আসন ছবি- ১

এবার সামনে মাটিতে একটি বিন্দু অথবা চিহ্ন স্থাপন করুন এবং তার দিকে তাকিয়ে থাকুন এক সেকেন্ড । এরপর ওপরের দিকে (আপনার ঘরের ছাদের দিকে)

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা - Methods and Benefits of Seating
দৃষ্টিদান আসন ছবি- ২

একটি পয়েন্ট আগে থেকেই ঠিক করে নিয়ে সেদিকে তাকান এবং এক সেকেন্ড অবস্থান করুন । দৃষ্টি এবার ডান দিকে (ওপরের ছাদের দিকে) একটি পয়েন্ট ভেবে নিয়ে চোখের মনি ঘুরিয়ে তাকান । এক সেকেন্ড অবস্থান করুন । আবার নিচের পয়েন্টে তাকান । এভাবে প্রথমে ডান দিকে ও পরে বাম দিকের পয়েন্ট ঠিক করে একইভাবে করুন ।

অর্থাৎ নিচে-ওপরে-ডানে-নিচে- এভাবে সাত থেকে ১০ বার চোখের মনি ডানে-নিচে- এভাবে সাত থেকে ১০ বার চোখের মনি ঘোরান । আবার নিচে-ওপরে-বামে-নিচে- এভাবে চোখের মনি ঘোরান সাত থেকে ১০ বার । প্রত্যেকবার দৃষ্টি নিক্ষেপ করে এক সেকেন্ড অবস্থান করুন ।

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা - Methods and Benefits of Seating
দৃষ্টিদান আসন ছবি- ৩

মেরুদণ্ড সোজা রেখে ঠিকভাবে বসবেন । মাথা নড়বে না । শুধু চোখের মনি ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে করবেন ।

দৃষ্টিদান আসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা - Methods and Benefits of Seating
দৃষ্টিদান আসন ছবি- ৪

দৃষ্টিদান আসন করার উপকারিতা

1. এ আসনটিতে চোখের বিশেষ উপকার হয় । দৃষ্টিশক্তি বাড়ে । চোখের এলার্জি থাকলে তার উপশম হয় । চোখের নার্ভগুলোতে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পেয়ে চোখকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে । অল্পবয়স থেকেই এ আসন অভ্যাস করলে দৃষ্টিশক্তি ঠিক থাকে, চশমা পরতে হয় না ।

বি.দ্র. : চোখের কঠিন অসুখে ভুগলে এ ব্যায়াম করা যাবে না । প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here