Methods And Benefits Of Relaxation – শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা

শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা | Methods and benefits of relaxation
শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা | Methods and benefits of relaxation

Methods And Benefits Of Relaxation – শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা

Benefits Of Relaxation: যোগ (Yoga) হল প্রাচীন ভারতে উদ্ভূত এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা। শরীর, মন সুস্থ ও সবল রাখতে এবং রোগ মুক্তিতে যোগাসনের ভূমিকা আজ সুপ্রতিষ্ঠিত। এই প্রথা সারা বিশ্বে আজও প্রচলিত আছে। তাই আজ আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি সহজ শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা। সহজ শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা নিয়ে নিচে আলোচনা করা হল।

শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি

সহজ শিথিলায়ন বা শবাসন ব্যায়ামের পূর্বে এবং ব্যায়ামের পরে পাঁচ থেকে 10 মিনিট করতে পারেন । শব অর্থ লাশ । অর্থাৎ মৃত বা লাশের মতো পড়ে থেকে শ্বাসপ্রশ্বাস স্বাভাবিক রেখে শরীর পুরোপুরি শিথিল বা নরম করে দেয়া অর্থাৎ হাত-পা পুরোপুরি ছেড়ে দিলে যেমন লাগে সেভাবে আপনি চিৎ হয়ে শুয়ে পা দুটো লম্বা করে ছড়িয়ে দিন ।

তবে দুপায়ের মাঝে এক হাত পরিমাণ ফাঁক রাখলে ভালো । হাত দুটো শরীরের দুপাশে ও হাতের তালু ওপরের দিকে রাখুন । এরপর চোখ বন্ধ করে গভীরভাবে তিন/চার বার লম্বা দম নিয়ে ধীরে ধীরে দম ছাড়ুন । তারপর স্বাভাবিকভাবে দম নিতে নিতে ভাবুন আপনার শরীর পুরোপুরি শিথিল অর্থাৎ নিস্তেজ হয়ে আছে, বেশ আরাম লাগছে ।

Methods And Benefits Of Relaxation - শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি ও উপকারিতা
শিথিলায়ন বা শবাসন করার পদ্ধতি

এবার কল্পনা করুন, আপনি একটি সুন্দর মনোরম ফুলের বাগানে সবুজ নরম ঘাসের ওপর শুয়ে আছেন । গ্রীষ্মকাল হলে ভাবুন দখিনা বাতাস আপনার শরীরকে জুড়িয়ে দিচ্ছে আর শীতকাল হলে ভাবুন ঈষদুষ্ণ বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে । বেশ আরাম আরাম লাগছে । মন থেকে সকল দুশ্চিন্তা দূর করে দিন ।

কল্পনার রাজ্যে কিছুক্ষণ বিচরণ করুন । শবাসন করাকালে বিশ্বাসের সাথে ভাবুন আপনার শরীর সম্পূর্ণ সুস্থ । আপনার খুব আরাম লাগছে । এভাবে ভাবতে ভাবতে ঘুম এসে গেলেও ক্ষতি নেই ।

সহজ শিথিলায়ন বা শবাসন উপুড় হয়ে শুয়েও করতে পারেন । তবে ব্যায়াম চলাকালে উপুড় হয়ে ব্যায়াম করার সময় যদি একটু বিশ্রাম নিতে চান তখন উপুড় হয়ে এক মিনিট শবাসন করতে পারেন । সাধারণভাবে চিৎ হয়ে শুয়ে শবাসন বা সহজ শিথিলায়ন করবেন ।

শিথিলায়ন বা শবাসন করার উপকারিতা

1. ব্যায়ামের পর সহজ শিথিলায়নে দেহ-মন উভয়ই বিশ্রাম পায় । সহজ শিথিলায়নের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো যে, আমরা যখন দাঁড়িয়ে বা বসে থাকি তখন শরীরের ওপরের অংশে রক্ত চলাচল চালু রাখতে হৃৎপিণ্ডকে মাধ্যাকর্ষণ শক্তির বিরুদ্ধে কাজ করতে হয় । কিন্তু সহজ শিথিলায়নের সময় মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাব শরীরের সমস্ত অংশের ওপর সমান থাকে বলে রক্ত চলাচল সহজ হয় এবং শরীরের সকল অংশে হৃৎপিণ্ড বেশি পরিশ্রম না করেই রক্ত সরবরাহ করার সুযোগ পায় । ক্লান্তি দূর হয়ে সহজেই সতেজ অনুভূতি চলে আসে ।

2. যারা শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রম বেশি করেন তাদের জন্যে সহজ শিথিলায়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা করে ক্লান্তিবোধ করলে 10 মিনিট সহজ শিথিলায়ন করে নিলে পুনরায় পড়াশোনায় মনোযোগ বৃদ্ধি পাবে । গর্ভবতী মায়েদের জন্যে সহজ শিথিলায়ন খুবই উপকারী । তাতে শরীর-মন দুটোই ভালো থাকে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here