কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন

কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন
কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন

কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন: আজ আমরা এখানে কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন সেই বিষয়ে আলোচনা করব। ভ্রূর সৌন্দর্য বাড়াতে আপনাকে এই গুলি জানতে হবে। কি ভাবে ভ্রূর যত্ন নেবেন সেই সম্পর্কে নিচে লেখা হলো।

Table of Contents

ভ্রূর যত্ন

দেহের গঠনের মতো ভ্রূরও প্রকারভেদ রয়েছে । যেমন কারো ভ্রূ মোটা এবং ঘন । আবার কারো ভ্রূ সরু কিংবা চিকন । কারো ভ্রূ চ্যাপটা ধরনের এবং মোটা । কারো ভ্রূ পাতলা, কারো ভ্রূ লম্বাটে আবার কারো ভ্রূ খাটো ধরনের । তবে যে ধরনেরই হোক না কেন আজকাল আর এটা কোনো সমস্যা নয় ।

যাদের ভ্রূতে কেশের পরিমাণ কম তারা প্রতিদিন রাতে ভালো ক্যাস্টর অয়েল অরেঞ্জ স্টিক অথবা হাতের আঙুল দিয়ে ভ্রূতে লাগাতে পারেন । এভাবে তিন মাস লাগালে দেখবেন আপনার ভ্রূ ঘন কালো হয়ে উঠছে ।

আর যাদের ভ্রূ মোটা তারা আজকাল বিউটি পার্লারে গিয়ে নিজের পছন্দ মতো ভ্রূর আকার তৈরি করে নিতে পারেন । তবে মনে রাখবেন আপনার মুখের সাথে যে রকম ভ্রূ দেখতে সুন্দর স্বাভাবিক মনে হবে সে রকম সাইজ করে নেবেন । কাউকে চিকন এবং সরু ভ্রূতে বেশি মানায় দেখে আপনিও তা-ই করতে যাবেন না ।

মনে রাখবেন সবাইকে সবটাতে মানায় না । এছাড়া আপনি নিজেও শন দিয়ে ভ্রূ তুলে সুন্দর সাইজ করে নিতে পারেন । তবে ভালো ভাবে করতে পারলেই করবেন । তা না হলে বিউটি পার্লারে গিয়ে অভিজ্ঞ বিউটিশিয়ান দিয়ে করিয়ে নেয়াই ভালো ।

আরও পড়ুন- কি ভাবে চোখের যত্ন নেবেন

একটি কথা মনে রাখবেন, ভ্রূর পুরো আকার বদলে না ফেলে ছোট খাটো কিছু ত্রুটি সংশোধনের মাধ্যমেই একে আরো সুন্দর করে তোলা যায়- যাতে আপনার ভ্রূ দেখে স্বাভাবিক সুন্দর মনে হয় । সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে যত স্বাভাবিকতা বজায় রাখা যায় ততই ভালো । আপনার মেক-আপ, সাজপোশাক যত সুন্দর হোক, যদি ভ্রূ মানানসই না হয়, তাহলে পুরো মুখমণ্ডলের সাজটাই লাগবে বিশ্রী ।

ভ্রূ সাজানোর জন্যে প্রয়োজন শুধু একটি আই-ব্রো পেন্সিল । পেন্সিলের রং হোক কালো কিংবা বাদামি-কোনো অসুবিধে নেই ।

প্রথমে ভ্রূ ব্রাশ করে নিন । তারপর পেন্সিলের সাহায্যে হালকাভাবে পুরোটা এঁকে ফেলুন । খেয়াল রাখবেন যেন গাঢ় করে এঁকে না ফেলেন । এমনভাবে আঁকুন দেখতে যেন স্বাভাবিক মনে হয়, একটু উজ্জ্বলও লাগে । আঁকার পরে আবার ব্রাশ করে নেবেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here