ঋতু অনুযায়ী সাজ কিভাবে পরলে আকর্ষণীয় দেখায়

Dress according to the season | ঋতু অনুযায়ী সাজ
Dress according to the season | ঋতু অনুযায়ী সাজ

ঋতু অনুযায়ী সাজ কিভাবে পরলে আকর্ষণীয় দেখায়: আমরা অনেকেই কোন সময় কী সাজ হওয়া উচিত তা জানি না বা সেভাবে সাজিও না । কথায় বলে, সব সাজ সব জায়গায় মানায় না আর সব কথা সব জায়গায় বলা যায় না । তাই আমাদের জানা উচিত কোন ঋতুতে কী রকম সাজ হওয়া ভালো । ঋতুর সাথে খাপ খাইয়ে আপনার সাজ হলে সেটা আপনার সুরুচির প্রকাশ পাবে । আমাদের দেশ গ্রীষ্মপ্রধান দেশ । তাই প্রথমেই গ্রীষ্ম ঋতু দিয়ে শুরু করা যাক ।

ঋতু অনুযায়ী সাজ কিভাবে পরলে আকর্ষণীয় দেখায়

গ্রীষ্মের সাজ

গ্রীষ্মকালে আমরা প্রচণ্ড ঘেমে থাকি । তাই শরীর অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে পড়ে । গরমের দিনে এমনিতেই আপনি অস্বস্তিবোধ করেন । আর এসময় যদি রং চটচটে মেক-আপ করতে যান তাহলে নিজের কাছে তো অস্বস্তি লাগবেই, অন্যের দৃষ্টিতেও সেটা রুচিহীনতার পরিচয় বহন করবে ।

কারো কাছে মনে হতে পারে রং মেখে সঙ সেজেছেন । তাই গ্রীষ্মকালে দিনের বেলায় মেক-আপ করবেন হালকা, যা দেখতে লাগে স্বাভাবিকের মতো । তবে রাতের অনুষ্ঠানে বিয়ে বাড়িতে কিছুটা ভারী সাজ করতে পারেন ।

আরো পড়ুন- ৭ দিনে ওজন কমানোর ডায়েট চার্ট

মেক-আপের শুরুতে এক টুকরো তুলোতে কয়েক ফোঁটা এস্ট্রিনজেন্ট লোশন নিয়ে মুখমণ্ডল, গলা, ঘাড়- এসব জায়গায় লাগাবেন । তবে চোখের চারপাশ বাদ দিয়ে, কারণ গরমের দিনে ঘাম বেশি হয় । এটি লাগানোর কিছু পরে মুখের মেক-আপ করতে পারেন । ফাউন্ডেশনের বদলে বেইজ হিসেবে ভ্যানিশিং ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন । তবে প্রথমে আপনাকে ময়েশ্চারাইজিং লোশন মুখমণ্ডলে বিশেষ করে দুচোখের পাশে লাগাতে হবে ।

এরপর ধারাবাহিকভাবে সব জিনিস দিয়ে হালকাভাবে সেজে নিয়ে আবারও এস্ট্রিনজেন্ট লোশন খুব সতর্কভাবে মেক-আপের ওপর আলতোভাবে চেপে লাগান । জোরে ঘষা লাগাবেন না । তাহলে মেক-আপ উঠে যেতে পারে । এভাবে মেক-আপের আগে ও পরে এস্ট্রিনজেন্ট লোশন ব্যবহার করলে দুই/তিন ঘণ্টা মেক-আপ ঠিক থাকবে ।

বি.দ্র. : লিপস্টিক এবং আইশ্যাডো অবশ্যই গরমের দিনে হালকা হতে হবে । সুগন্ধি বা পারফিউম হবে হালকা মিষ্টি গন্ধের ।

বর্ষার সাজ

গ্রীষ্মের পরেই আমাদের দেশে শুরু হয় বর্ষা । কখনো কখনো আট/১০ দিন পর্যন্ত একনাগাড়ে বৃষ্টি হয় । এসময় বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকে । আর আর্দ্রতা বেশি থাকার ফলে ময়েশ্চারাইজিং লোশন কম পরিমাণে ব্যবহার করলেও চলবে ।

বর্ষা ঋতুতে গ্রীষ্মের মতো রৌদ্র তাপ না থাকলেও ভ্যাপসা গরম বোধ হবে মাঝে মাঝে । তাই এসময় হালকা সাজ হবে রুচির পরিচয় । এসময় ফাউন্ডেশন হিসেবে কমপ্যাক্ট মেক-আপ বা প্যানকেক ব্যবহার করতে পারেন । এতে সামান্য কারণে আপনার মুখ ভিজে গেলেও মেক-আপ উঠে যাবার ভয় নেই ।

এসময় কাজলের পরিবর্তে আই লাইনার এবং ওয়াটার প্রুফ মাসকারা ব্যবহার করবেন । লিপস্টিক হালকা রঙের ব্যবহার করবেন । তবে দিনটি যদি মেঘে ঢেকে থাকে, অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়, তাহলে গাঢ় লিপস্টিক সেদিন ব্যবহার করতে পারেন ।

শীতের সাজ

গ্রীষ্মপ্রধান দেশের মানুষের জন্যে শীত ঋতু একটা আনন্দের সময় । এসময় বাজারে আসে শীতের হরেক রকম সব্জি । তা খেতে যেমন সুস্বাদু ও রুচিকর তেমনি রূপচর্চায়ও এগুলোর ব্যবহার হয়ে ওঠে আনন্দের । শরীরে পুষ্টির জন্যেও পাওয়া যায় প্রচুর ভিটামিনযুক্ত খাবার । আর সাজের সুযোগও চমৎকার । শীতকালে শরীর বেশি ঘামে না বলে সাজগোজ স্থায়ী থাকে বেশিক্ষণ । তৈলাক্ত ত্বক যাদের, তাদের জন্যে সাজগোজ হয় মনের মতো । কারণ এসময় মুখে তেলতেলে ভাব হয় অতি সামান্য ।

এসময় এ ধরনের ত্বকের মানুষের সাজ হয়ে ওঠে কমনীয় । ভারী মেক-আপ যারা ভালবাসেন এখন তাদের সুসময় । প্রসাধনীর সব কিছু এসময় ব্যবহার করা যায় । প্রথমে ময়েশ্চারাইজিং লোশন মুখমণ্ডলে বিশেষ করে দুচোখের পাশে সুন্দর করে লাগান । শীতকালে গাঢ় রঙের লিপস্টিক, লিপগ্লস ব্যবহার করতে পারেন । হাত-পায়ে ময়েশ্চারাইজিং লোশন লাগাতে ভুলবেন না । তা না হলে হাতের ত্বক খসখসে ধুলো লাগার মতো মনে হতে পারে ।

বসন্তের সাজ

বসন্তকে বলা হয় ঋতুরাজ । এর স্থায়িত্ব খুব কম । বসন্ত ঋতুতে মানুষের মনে স্বাভাবিকভাবেই জাগে আনন্দের শিহরণ । এসময়টাই এমন যে, খুব গরম নয় আবার খুব শীতও নয় । তাই ত্বক হয়ে ওঠে সতেজ, উজ্জ্বল । এসময় সাজগোজ যেভাবেই করুন না কেন দেখতে লাগবে সুন্দর ।

তবে এসময় মধ্যম ধরনের সাজগোজই মানায় বেশি । না বেশি গাঢ়, না বেশি হালকা । প্রকৃতি আর আবহাওয়ার কারণেই একটা প্রফুল্ল স্নিগ্ধ ভাব আসে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here